Ajker Kashiani
অন্যান্য

গোপালগঞ্জে হত্যা মামলায় একজনের ফাঁসি, ২৩ জন খালাস

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি:- গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার আলোচিত কামাল ফকির হত্যা মামলার প্রধান আসামি মো. চাঁন মিয়া ওরফে চান্দু মিয়াকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। এছাড়া এ মামলার অপর ২৩ আসামিকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২ জুন) বেলা ১১ টায় গোপালগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আব্বাস উদ্দীন এ রায় দেন।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, ২০১৫ সালের ১৬ মে মো. কামাল হোসেন তিতাগ্রামের মো. ইসমাইল মোল্লার স্ত্রীর কুলখানি শেষে বাড়ি ফেরার পথে মামলার প্রধান আসামি চাঁন মিয়া বাড়ির পাশে ওত পেতে থাকে। ঘটনাস্থলে পৌঁছালে চাঁন মিয়া ও তার সঙ্গীরা কামালকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে। স্থানীয়রা উদ্ধার করে কাশিয়ানী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পরে নিহতের পিতা মো. শাহাদাৎ ফকির বাদি হয়ে কাশিয়ানী থানায় ২৮ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন (মামলা নম্বর-৮, তারিখ ১৮.৫.২০১৫)। মামলায় কাশিয়ানী থানা তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে। মামলার বাদি থানা তদন্ত প্রতিবেদনে না রাজি জানালে আদালত পিবিআইকে তদন্তের দায়িত্ব দেয়। পিবিআই দীর্ঘ তদন্তের পর ২৪ জনকে আসামি করে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে।

দীর্ঘ শুনানীর পর বৃহস্পতিবার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক ২৩ জনকে খালাস দিয়ে মামলার প্রধান আসামি মো. চাঁন মিয়াকে ফাঁসির আদেশ দেন। মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামি চান মিয়া পলাতক রয়েছেন।

মামলায় রাস্ট্র পক্ষের আইনজীবী মো. শহিদুজ্জামান খান পিটু বলেন, আমরা এ রায়ে পুরাপুরি সন্তুষ্ট হতে পারিনি। আমরা মামলার বাদীর সাথে কথা বলে উচ্চ আদালতে যাওয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবো। মামলায় আসামি পক্ষের আইনজীবী ছিলেন মো. শহিদুল ইসলাম।