Ajker Kashiani
অন্যান্য

বোনের ‘বসতবাড়ি দখলচেষ্টার’ অভিযোগ ভাইয়ের বিরুদ্ধে

কাশিয়ানী প্রতিনিধি:- গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে এক বিধবা নারীর বসতবাড়ি জোরপূবর্ক দখলচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে তার আপন ভাইয়ের বিরুদ্ধে।

উপজেলার সদর ইউনিয়নের খায়েরহাট গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। স্বামীর রেখে যাওয়া কষ্টার্জিত বাড়ি রক্ষার জন্য দ্বারে দ্বারে ঘুরেও প্রতিকার না পেয়ে আদালতের শরণাপন্ন হয়েছেন।

ভূক্তভোগী মোসা. নুর জাহান বেগম অভিযোগ করে বলেন, ‘২০১২ সালে আমি আমার বড় ভাই ইলিয়াছ হোসেনের কাছ থেকে ১২ শতাংশ জমি দলিলমূলে ক্রয় করি। এরপর সেখানে একটি একতলা পাকা ভবন নির্মাণ করে বসবাস করে আসছি। ২০১৩ সালে আমার স্বামী হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে আমার বড় ভাই বিক্রি জমির মালিকানা দাবি করে আমাকে বসতভিটা থেকে উচ্ছেদের পাঁয়তারা করছেন। আমার ভবনের একটি কক্ষ দখল করে সেখানে পরিবার নিয়ে বসবাসও করছেন তিনি। আমাকে নানাভাবে ভয়ভীতি দেখিয়ে বাড়ি ছাড়া করতে চাইছেন। আমি ভয়ে আমার নয় বছরে একমাত্র সন্তান সাকিবকে নিয়ে কাশিয়ানী সদরে বাসা ভাড়া করে বসবাস করছি। আমি থানায় অভিযোগ করে কোন প্রতিকার না পেয়ে আদালতে মামলা করেছি। আমি আমার বসতবাড়ি রক্ষায় প্রধানমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।’

নুরজাহান বেগমের ছোট ভাই সেলিম শিকদার বলেন, ‘২০১২ সালে আমার বড় বোন নুরজাহান আমার বড় ভাই ইলিয়াছ হোসেনের কাছ থেকে ১২ শতাংশ জমি কিনে সেখানে ভবন করে বসবাস করছেন। আমার বড় ভাই এখন জমির মালিক দাবি করে বোনের বসতবাড়ি জোরপূর্বক দখলের চেষ্টা করছেন। যা সম্পূর্ণ জালিয়াতি ও বেআইনি। এর সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।’

অভিযোগের বিষয়ে ইলিয়াছ হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমি সাংবাদিকদের সাথে কথা বলতে রাজি না। যা হওয়ার আদালতে হবে। এখানে কথা বলার কি আছে।’

কাশিয়ানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মাদ ফিরোজ আলম বলেন, ‘ভূক্তভোগী ওই নারী আদালতে মামলা করেছেন। আদালতের নির্দেশে উভয়পক্ষকে শান্তিশৃঙ্খলা এবং বিরোধপূর্ণ জমিতে স্থিতিবস্থায় বজায় রাখতে বলা হয়েছে।’