Ajker Kashiani
অন্যান্য

কাশিয়ানীতে ভাবি-ভাতিজা পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টা, ভাতিজার মৃত্যু

প্রতিনিধি কাশিয়ানী:- গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে ঘুমন্ত অবস্থায় ঘরে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়ে ভাবি-ভাতিজাকে পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে আপন দেবরের বিরুদ্ধে। 

আগুনে পু্ড়ে সাত মাসের শিশু ভাতিজা আব্দুর রহিম ঘটনাস্থলে মারা গেছে।

অগ্নিদগ্ধ ভাবি ফাতেমা বেগমকে (৩৬) সংকটাপন্ন অবস্থায় গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শনিবার (৬ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় উপজেলার বেথুড়ী ইউনিয়নের নড়াইল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর অভিযুক্ত দেবর হোসাইন মিয়া পলাতক রয়েছেন।

কাশিয়ানী থানার রামদিয়া পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. জসিম উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

অগ্নিদগ্ধ ফাতেমা বেগমের স্বামী মো. মোরাদ মিয়া অভিযোগ করে বলেন, আমি শনিবার বিকেলে আনসার ভিডিপির নির্বাচনী ডিউটিতে দীঘড়গাতি গিয়েছিলাম। আমার স্ত্রী সন্ধ্যায় সন্তানকে নিয়ে ঘরে ঘুমিয়েছিল। এ সময় আমার ছোট ভাই হোসাইন মিয়া শত্রুতা করে ঘরে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। আমার স্ত্রী চিৎকার দিলে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে আগুন নিভায়। আগুনে পুড়ে আমার সাত মাসের শিশুসন্তান মারা যায় এবং স্ত্রী আসমা গুরুতর আহত হয়। পরে প্রতিবেশিরা আমার স্ত্রী ও সন্তানকে উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তির জন্য নিয়ে যায়। পথে শিশু আব্দুর রহিম মারা যায়।

কাশিয়ানী থানার রামদিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়েছিল। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। নিহত শিশুর পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। তবে ঘটনার কারণ এখনও জানা যায়নি।